বাংলাদেশ

২০৪১ সালের রূপকল্প বাস্তবায়নে নাগরিককে কাজ করার আহবান জানালেন ডিসি মঞ্জুরুল হাফিজ

  দেশান্তর প্রতিবেদন ২৮ মার্চ ২০২১ , ৩:৩৮:১৯

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

মহান স্বাধীনতার ৫০ বছর সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আম্রকাননে ঘেরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধু মঞ্চে দু’দিন ব্যাপী চলা উন্নয়ন প্রদর্শনী মেলার আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আর অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাজমুল ইসলাম সরকার।

আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শঙ্কর কুমার কুন্ডু, জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডা. মো. আব্দুস সালাম, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম।

জেলা মহিলা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শাহিদা আক্তার, জেলা ইসলামিক ফাউণ্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. আবুল কালাম আজাদ, জেলা ভারপ্রাপ্ত খাদ্য নিয়ন্ত্রক অন্তরা মল্লিকসহ জেলার বিভিন্ন সরকারি অধিদপ্তরের প্রধানগণ।

রূপকল্প ২০৪১ সালকে সামনে রেখে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে দু’দিন ব্যাপী উন্নয়ন প্রদর্শনী মেলার সমাপনী দিনে সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, আজ সারাদেশে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে মানুষ আনন্দিত, আজ আনন্দ করার জন্য এ অনুষ্ঠান, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের কাছে রোল মডেল।

তিনি আরও বলেন, দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ, ৬৪ টি জেলায় ১০০ টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা হয়েছে, পদ্মাসেতু আজ সপ্ন নয়, নদীর নিচ দিয়ে আজ কর্ণফুলী ট্যানেল শেষের পথে, যোগাযোগ ব্যাবস্থার অভুতপূর্ব উন্নয়ন।

এ উন্নয়ন কে টেকসই করতে আমাদের নৈতিক উন্নয়ন ঘটাতে হবে। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে পার্শ্ববর্তী একটি রাষ্ট্রের প্রধান আসাকে কেন্দ্র করে কিছু মানুষের অরাজকতার সমালোচনা করেন জেলা প্রশাসক।

আগামী ২০৪১ সালের রূপকল্প বাস্তবায়নে জেলার সকল নাগরিক কে একযোগে কাজ করার আহবান জানান ডিসি মো. মঞ্জুরুল হাফিজ। অনুষ্ঠান ও মেলা সফল ভাবে সম্পন্ন করায় সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন ডিসি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরও খবর 34

Sponsered content