বাংলাদেশ

রোড টু হেভেন

  দেশান্তর প্রতিবেদন ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ , ৭:১০:০৬

নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ রোড টু হেভেন।ভ্রমণ পিপাসুদের প্ল্যাটফর্ম।কম খরচে ভ্রমণ ও ভ্রমণ পিপাসুদের লোন দিয়ে ট্যুরের সুবিধা দেয় এই প্ল্যাটফর্ম।ব্যতিক্রমধর্মী এই প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) এর ২ শিক্ষার্থী।

এরা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের তামজিদ অনিক ও আকাশ হান্নান।

এই উদ্যোগ বাস্তবায়নে ফেসবুকে ‘রোড টু হেভেন’ নামে গ্রুপ খোলা হয়েছে।

এই বিষয়ে তামজিদ অনিক বলেন, করোনাকালীন সময়ে আমাদের গ্রুপ খোলা হয় এবং কার্যক্রম শুরু হয়।এখন আমি আর আকাশ এই দুজনই পরিচালনা করছি এবং সাথে মডারেটর ও এডমিন আছে।২০২০ এর নভেম্বর এর ২২ তারিখে আমরা প্রথম ট্যুরে যাই।এখন পর্যন্ত ৬ টি ট্যুর দিয়েছি।সাজেক,সেন্ট মার্টিন,নিঝুম দ্বীপ,মারং টং,কক্সবাজারে এই ট্যুর গুলো হয়েছে এবং ট্যুরগুলোতে অনেক সাড়া পেয়েছি।

এই উদ্যোগের বিষয়ে তামজিদ অনিক বলেন, ট্রাভেল করার আমার একটা নেশা ছিল।কিন্তু অনেক সময় ট্যুরে যাওয়ার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও টাকার জন্য যাওয়া হয় না।ওখান থেকে এই চিন্তা আসে যদি এমন হয় যে ট্যুর এর জন্য লোন দেওয়া হবে এবং সেটা মাসে মাসে পরিশোধ করতে পারবে।আমরা যারা এডভেঞ্চার ভালবাসি,যারা কম খরচে ট্যুর দেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকি তাদের জন্যই আমাদের এই প্ল্যাটফর্ম।

ট্যুর লোন পাওয়ার বিষয়ে তামজিদ অনিক বলেন,লোন পেতে ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি, স্টুডেন্ট /জব আইডি কার্ডের ফটোকপি এবং ১ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি দিতে হবে।৩ মাসের মধ্যে এই লোন পরিশোধ করা যাবে এবং কোনো ইন্টারেস্ট দিতে হবে না।আর ট্যুর লোন পেতে হলে অবশ্যই ট্যুর প্যাকেজের মধ্যে যেতে হবে।

এই উদ্যোগ নিয়ে ভবিষ্যত পরিকল্পনার বিষয়ে তামজিদ অনিক বলেন,আমরা এটাকে অনেক বড় একটা ট্যুর প্ল্যানার বানাতে চাই। টাকার জন্য কেউ ট্যুর এ যেতে পারবে না সেটা যেন না হয় এ উদ্দেশ্যে আমরা এগিয়ে যেতে চাই। ভবিষ্যতে আমরা একটা ট্রাভেল ব্যাংক খোলার পরিকল্পনা করেছি যার মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো জায়গায় যাবার জন্য আমরা ট্যুর লোন দিতে পারব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরও খবর 34

Sponsered content