বাংলাদেশ

যবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন আল-জাজিরার সংবাদে প্রধানমন্ত্রীকে জড়ানো মানা যায় না

  দেশান্তর প্রতিবেদন ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ , ১১:১৪:৫৩

যবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ বলেছেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অযাচিত ও অপ্রাসঙ্গিকভাবে জড়িয়ে আল-জাজিরা যে সংবাদ পরিবেশন করেছে তা দেশের জন্য মানহানিকর। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জড়িয়ে এ ধরনের ভুলে ভরা, মিথ্যা, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ‘হলুদ সাংবাদিকতা’ মানা যায় না।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে যবিপ্রবির মাইকেল মধুসূদন দত্ত কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার কাম একাডেমিক ভবনের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।যবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন আল-জাজিরার সংবাদে প্রধানমন্ত্রীকে জড়ানো মানা যায় না

মানববন্ধনে শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘অল দ্য প্রাইমিনিস্টারস মেন’ শিরোনামে আল-জাজিরার পরিবেশিত সংবাদে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে রাজনৈতিকভাবে বহির্বিশ্বে তাঁকে হেয় করার জন্য বিশেষ কারো ইশারায় এ ধরনের সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। একটি বিশেষ কুচক্রীমহল দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার ধারাকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য এ ধরনের মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করেছে। যবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে। একইসঙ্গে বাংলাদেশে আল-জাজিরার সম্প্রচার বন্ধ এবং এর পেছনে জড়িত ও মদদদাতাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাচ্ছি।

শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি ড. এস এম নুর আলম বলেন, যাঁরা বাংলাদেশের উন্নয়ন সহ্য করতে পারে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ জানাতে দুঃসাহস দেখায়, তাদের চক্রান্তে আল-জাজিরা এ ধরনের দায়িত্ব জ্ঞানহীন, বানোয়াট, ফরমায়েশি প্রামাণ্যচিত্র বানিয়েছে। বাংলাদেশের আপামর জনসাধারণ এটাকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করেছে। যাঁরা এর সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

যবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধনে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন, ড. ইঞ্জ. বলেন, আল-জাজিরা কর্তৃক পরিবেশিত ‘অল দ্য প্রাইমিনিস্টারস মেন’ সংবাদে বাংলাদেশকে মাফিয়া স্টেট বলে অবহিত করা হয়েছে। যেটা স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে, এটা মেনে নেওয়া যায় না। তথ্য-উপাত্তের গোঁজামিল দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জড়িয়ে একটি বিশেষ এজেন্ডা বাস্তবায়নে এ ধরনের ভিত্তিহীন, মিথ্যা, দুরভিসন্ধিমূলক, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। এটা বাংলাদেশ রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্র। এ ষড়যন্ত্রের বিষদাঁত ভেঙে দেওয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সকলের প্রতি আমি আহ্বান জানাচ্ছি।

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন যবিপ্রবির ডিনস কমিটির আহ্বায়ক ড. মো. নাসিম রেজা, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গালিব, ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বাস, প্রক্টর ড. সেলিনা আক্তার, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক ড. মো. আলম হোসেন প্রমুখ। এ ছাড়া মানববন্ধনে যবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক ড. মো. আব্দুর রউফ সরকার, কোষাধ্যক্ষ ড. মো. শাহেদুর রহমান, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. মেহেদী হাসান, নির্বাহী সদস্য কিশোর কুমার সরকার, ড. মো. ফরহাদ বুলবুল, মো. সুমন রহমান, ড. মো. হুমায়ুন কবিরসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান ও শিক্ষকবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরও খবর 34

Sponsered content