fbpx

শ্রীমঙ্গলে করোনা কেড়ে নিলো ভাই বোনের প্রাণ

                                           
রতন মালাকার
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ শ্রীমঙ্গল উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নে গত রাত ৪টা২৫ মিনিটে ভাই বেনু ভট্টাচার্য (৬২) ও বোন শিলা ভট্টাচার্য (৭০) ১টা২৭মিনিটে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরন করেন।

মির্জাপুরে যারা মৃত দেহ সৎকারে সহযোগিতা করে থাকেন তাদের মধ্যে করোনা রোগী সৎকারে অভিজ্ঞতা না থাকার কারনে লাশ সৎকার নিয়ে দু:চিন্তা শুরু হয়।

পরে মির্জাপুর থেকে প্রথমে পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ কাশী শর্মা, শ্রীমঙ্গল হেলথ কমপ্লেক্স এর কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী, মির্জাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক ননী গোপাল রায় ও স্থানীয় ব্যাক্তি রজত রায় শ্রীমঙ্গল উপজেলা করোনা দেহ সৎকার কমিটির যুগ্ম আহবায়ক সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ভানুলাল রায় ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ শ্রীমঙ্গল পৌর শাখার সাবেক সভাপতি করোনা সম্মুখ যোদ্ধা সনজয় রায় রাজুকে টেলিফোনে অবগত করলে তারা দুটি লাশ মির্জাপুর হতে শ্রীমঙ্গল পৌর শ্মশান ঘাটে আনতে সনজয় রায় রাজু, অর্জুন দাশ, মিঠুন রায়, সনজু দাশ, দিবস মজুমদার সুরক্ষা সামগ্রীসহ একটি প্রাইভেট কার,একটি এ্যাম্বুলেন্স, একটি পিকআপ নিয়ে মির্জাপুরে যান।

তারা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরনকারীদের শ্রীমঙ্গল পৌর শ্মশানঘাটে নিয়ে আসলে উপজেলা করোনা সৎকার কমিটির আহবায়ক সুশীল শীল,যুগ্ম আহবায়ক চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়,সদস্য সচিব সুদীপ দাশ রিংকু, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিতালী দত্ত, সনজয় রায় রাজু, ছোটন চৌধুরী, কানন দেব, অর্জুন দাশ, শুকদেব কৈরী, দিবস মজুমদার, সনজু দাশ, সুজিত রায়, পাপন দত্ত, ঝলক দেবরায় প্রমুখ

সনাতন ধর্মীয় বিধি-বিধান অনুসরণপূর্বক ও সরকারের স্বাস্থ্য বিধি মেনে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগ থেকে পড়ুন