fbpx
সংবাদ শিরোনাম
রাবিতে আন্তঃহল বিতর্ক প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন সৈয়দ আমির আলী হল লাইলাতুল বারাআত তথা মুক্তি বা পরিত্রাণের রজনী। মুজিবনগরে বিদেশী পিস্তল সহ ৫ যুবক আটক। শারীরিক প্রতিবন্ধী শিশুকে হুইলচেয়ার উপহার কৃষকের মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে ধ্রুমজাল তৈরি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রে ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯১.৭৫ শতাংশ ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু রাবির হোসন শহীদ সোহরাওয়ার্দী স্মারক আন্তঃক্লাব বিতর্ক উৎসব-২০২৪ ভাষা শহীদদের প্রতি রাবি রিপোর্টার্স ইউনিটির শ্রদ্ধাঞ্জলি। যশোরের অভয়নগর উপজেলা সমিতির দায়িত্বে গালিব ও পারভেজ সোনারগাঁও বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান মাসুদ রানার পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন
নোটিশ :

জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘দৈনিক দেশান্তর’ এ সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এজন্য দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতে আগ্রহীদের কাছ থেকে আবেদন আহবান করেছে প্রতিষ্ঠানটি। আগ্রহীদের ই-মেইলে সিভি পাঠানোর জন্য বলা হয়েছে। সিভি পাঠানোর ই-মেইল: dainikdeshantar@gmail.com  অথবা ০১৭৮৮-৪০৫০৯১ এ যোগাযোগ করুন।

রাজশাহী বাগমারায় খাবারের লোভ দেখিয়ে ১০ বছরের শিশু ধর্ষণ

                                           
প্রকাশ : রবিবার, ২১ মার্চ, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহীতে খাবারের লোভ দেখিয়ে ১০ বছরের এক শিশু কে ধর্ষণ করেছে প্রতিবেশী অবসরপ্রাপ্ত একজন স্কুল শিক্ষক। এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায়।

ঘটনা সূত্রে জানা যায় রাজশাহীর বাগমারায় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১০ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের ফলে শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে ঘটনা জানাজানি হয়।

তবে গ্রামে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা চালানো হয়। শেষ পর্যন্ত বিষয়টি থানা পর্যন্ত গড়ালে পুলিশ শনিবার (২০ মার্চ) বিকেলে ধর্ষণ মামলা গ্রহণ করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাগমারা উপজেলার একটি গ্রামে ওই অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক (৬২) গত বুধবার প্রতিবেশী এক মেয়ে শিশুকে (১০) খাবারের লোভ দেখিয়ে বাড়িতে ডেকে নেন। এ সময় তার বাড়িতে কেউ ছিলেন না। শিশুটিকে ঘরে ঢুকিয়ে নিয়ে দরজা লাগিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। এ সময় শিশুটি কান্নাকাটি শুরু করলে তাকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে ঘটনাটি কাউকে না বলার জন্য বলেন। ঘটনাটি প্রকাশ করলে তাকে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকিও দেন।শিশুটি বাড়িতে এসে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তবে ভয়ে ওই দিন ঘটনাটি পরিবারের কাউকে জানায়নি।

পরবর্তীতে শিশুটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পরদিন গত বৃহস্পতিবার সে ঘটনাটি তার মাকে জানায়। শিশুর মা পরিবারের অন্য সদস্যদের জানালে তারা অভিযুক্ত শিক্ষকের কাছে ঘটনার সত্যতা সম্পর্কে জানতে চান।

একপর্যায়ে শিক্ষক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এই অপরাধের জন্য ক্ষমা চান এবং স্থানীয়ভাবে সুরাহার জন্য অনুরোধ করেন। পরে শিশুটির পরিবারের লোকজন বিক্ষুব্ধ হলে তিনি পালিয়ে যান। শিশুর পরিবার ও এলাকার লোকজনের মুঠোফোনে ধারণ করা ভিডিওতে তাকে ঘটনার জন্য অনুতপ্ত ও ক্ষমা চাইতে দেখা গেছে।শিশুর পরিবারের সদস্যরা ঘটনাটি গ্রামের অন্যদের জানালে তাদের সহায়তায় বিষয়টি স্থানীয় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে জানানো হয়। পুলিশও শিশুর পরিবারকে এই বিষয়ে মামলা করার পরামর্শ দেয়। সে মোতাবেক শনিবার দুপুরে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ ও লোকজন শিশুসহ তার মা-বাবাকে বাগমারা থানায় নিয়ে আসেন।

এরপর বিকেলে শিশুর মা বাদী হয়ে ওই অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষককে আসামি করে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হয়েছে।হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পর থেকে আসামি পলাতক। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এই কাজের জন্য কোনোরকম ছাড় দেওয়া হবে না বলেও জানান তিনি।

এখন জনমনে একটাই প্রশ্ন মানুষ গড়ার কারিগর যদি নিজেই ধর্ষক হয় তবে শিশুদের ভবিষ্যত কোথায় ???

সংবাদটি শেয়ার করুন

অনলাইন জরিপ

আপনি কি মনে করেন পাঠ্যবইইয়ের শরিফ থেকে শরিফা গল্পটি অপসারণ করা প্রয়োজন?
×

এই বিভাগ থেকে পড়ুন