fbpx
সংবাদ শিরোনাম
ফল প্রকাশে অটোমেশন প্রক্রিয়ার উদ্বোধন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ: ১ জনকে হলত্যাগ ও ২ জনের ছাত্রত্ব বাতিলের সুপারিশ শার্শায় ফসলি জমির মাটি বিক্রির সিন্ডিকেট বেপরোয়া, জড়িত খোদ ইউপি সদস্যরা পাইকগাছায় ঘূর্নিঝড় রেমালের প্রভাবে নদ-নদীতে পানি বৃদ্ধি : মারাত্মক ঝুঁকিতে ২টি ভেড়িবাঁধ স্বতন্ত্র বেতনস্কেল প্রবর্তনের দাবিতে নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন রাবিতে প্রথমবারের মতো ‘ইনোভেশন শোকেসিং’ অনুষ্ঠিত জবির ফিচার, কলাম অ্যান্ড কনটেন্ট রাইটার্সের নেতৃত্বে মুনতাহা-শাহরিয়ার উচ্চশিক্ষা নিয়ে রাবিতে সেমিনার অনুষ্ঠিত শ্রেষ্ঠ উদ্ভাবনী উদ্যোগের জন্য নির্বাচিত দপ্তর-সংস্থার মাঝে শিল্পমন্ত্রীর সনদ বিতরণ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বজনীন পেনশন নীতিমালা প্রত্যাহারের দাবিতে শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

মেহেরপুরের গাংনীতে পুলিশের অভিযানে ৭টি গাঁজা গাছসহ কৃষক কুতুবউদ্দিন আটক

                                           
রাব্বি আহমেদ
প্রকাশ : শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১

মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ মেহেরপুরের গাংনীতে ৭টি গাঁজা গাছসহ কুতুবউদ্দিন (৬০) নামের এক কৃষককে আটক করেছে গাংনী থানা পুলিশ। শুক্রবার বিকেল ৫ টার দিকে উপজেলার রায়পুর পূর্বপাড়ার খামার মাঠৈর পানের বরজ ‌থেকে এ গাঁজা গাছ উদ্ধার করা হয়। অবৈধভাবে গাঁজা চাষ করায় জমির মালিক কুতুবউদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ।

পানের বরজের মালিক কুতুব উদ্দিন জানান, ছেলে সবুজ বেশ কয়েক বছর ধরে তার ১২ কাঠা জমির ৬ কাটাতে কলাগাছ ও ৬ কাটাতে পানের বরজের চাষ করে আসছে। আজকে পুলিশ যাওয়ার পরে তিনি টের পেয়েছেন পানের বরজ এর মধ্যে ৭টি গাঁজার গাছ চাষ করা হচ্ছে। তিনি পানের বরজের মধ্যে গাঁজার চাষ করা হচ্ছে এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। তিনি আরো জানান পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তার ছেলে সবুজ পালিয়ে গেছে।

গাংনী থানা ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম জানান, তার নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাংনী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৭টি গাঁজা গাছসহ কুতুবউদ্দিন নামের এক কৃষককে আটক করেছেন। কুতুবউদ্দিন রায়পুর পূর্ব পাড়ার মৃত দাউদ হোসেনের ছেলে। আটক কুতুবউদ্দিনকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হবে। সেই সাথে পলাতক সবুজকে আটক করতে পুলিশ মাঠে রয়েছেন।

তিনি আরো জানান, ইতোপূর্বে উপজেলার পুরাতন মটমুড়া গ্রাম থেকে ১৫ কাঠা জমিতে ১৯৫টি এবং বালিরঘাট গ্রাম থেকে আরও দুটি গাঁজা গাছ উদ্ধার করেছে গাংনী থানা পুলিশ। উক্ত দু’টি বিষয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগ থেকে পড়ুন