fbpx
সংবাদ শিরোনাম
মেহেরপুরের সাহিত্যিক মোঃ নুর হোসেন শব্দ কথায় সৃষ্টি করে চলেছেন সাহিত্যের নানান আদিত্য তাকবিরে তাশরিক কখন কিভাবে? সূনয়না বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি জয়নাল,সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত  Making The World A Better Place স্লোগানে তরুণ নেতৃত্ব তৈরি করছে  ইউপিজি ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে নতুন করে পদক্ষেপ নেওয়ার সময় এসেছে- শিল্পমন্ত্রী বেনাপোলে দুই দেশের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কর্মশালা অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্ব সকল স্বার্থের উর্ধ্বে – পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী পাইকগাছায় উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা উত্তরা আজমপুরে ডিএনসিসি’র উচ্ছেদ অভিযান; নেতৃত্বে মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম

পাবনায় শেষ বিকেলে বসন্ত বরণ 

                                           
শাবলু শাহাবুদ্দিন
প্রকাশ : সোমবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

সারাদিনে পাবনার কোথাও বোঝা যায় নি আজ কোন বিশেষ একটি দিন। বেলা তিনটার পরে হালকা হালকা বোঝা যায় আজকে বছরে বিশেষ কোন একটি দিন। বসন্ত বরণ। কারো মাথায় ফুলের তোরা। কেউবা শাড়িতে। ছেলেরা পাঞ্জাবি পরে ক্রম ক্রমে জোর হতে থাকে পাবনা এডওয়ার্ড কলেজ মাঠে। উৎসবে পরিণত হতে বেশি সময় লাগে না। বেলা চারটার মধ্যে লোকে পরিপূর্ণ হয়ে যায় পাবনা এডওয়ার্ড কলেজের মেইন গেট মাঠ, একাডেমি ভবন মাঠ, লিচু তলা মাঠ এবং আমনাকানন মাঠ। অল্প সময়ের মধ্যে আয়োজন করে বসে যায় ফুলের দোকান। ছেলে, মেয়ে, বড়, বাচ্চাদের প্রধান আকর্ষণ ফুলের তোরা, গোলাপ ও রজনীগন্ধার স্টিক। সবার হাতে হাতে ফুল। বসন্তের ফুল। কেউবা ফুল হাতে অপেক্ষা করছে প্রিয় জনের জন্য। বসন্ত বরণের সাথে কেউ কেউ পালন করছে ভালোবাসা দিবসও বটে। বুলবুল কলেজের একজন শিক্ষার্থী বলেন,”বসন্ত উপলক্ষে ফুল কিনলেও আমি মূলত ফুলটি কিনেছি আমার প্রিয় জনের জন্য।”

শিশু হালিমা বলেন, “আমি এবং আমার আম্মু বসন্ত বরণ করে নিতেই ফুলের তোরা কিনে মাথায় দিছি।”

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মো: রাসেদ বলেন, “দিনটি আমাদের মনে নতুন দিগন্তে সূর্য উদয়ের মত।”

এডওয়ার্ড কলেজের একজন ছাত্র মো: হারুন অর রশিদ বলেন, “বিশেষ কোন প্রতিষ্ঠান থেকে তেমন কোন আয়োজন করে বরণ করেনি এই বিশেষ দিনটিকে। তাই আমরা আমাদের ব‍্যক্তিগত উদ্যোগ থেকে বরণ করে নিচ্ছি দিনটিকে।”

ফুলের দোকানদার বাচ্চু বলেন, “সারাদিন তেমন একটা ফুল বিক্রি করতে পারি নাই। তবে এখন খুব চলছে।”

ফুলের দোকানের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি ফটোশপের স্টলও বসেছে। ছবি তুলছে মনের আন্দোলন সবাই। শেষ বিকেলে পাবনার সবাই বসন্তেকে বরণ করে নিছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগ থেকে পড়ুন